স্মার্টফোনে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন না এমন ইউজার এই যুগে পাওয়া যাবেনা বললেই চলে। কিন্তু যারা এখনো পুরো স্মার্টফোনে (পুরনো অপারেটিং সিস্টেম) হোয়াটসঅ্যাপ ইউজ করছেন  তাদের জন্য দু:সংবাদ নিয়ে এসেছে হোয়াটসঅ্যাপ। আইওএস, অ্যান্ড্রয়েড ও উইন্ডোজ ফোনের পুরোনো সংস্করণ থেকে হোয়াটসঅ্যাপ সাপোর্টিং সিস্টেম পুরোপুরি উঠে যাবে। আর এর জন্য কোটি কোটি পুরোনো স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা জনপ্রিয় এ  ম্যাসেজিং সেবাটি আর ব্যবহার করতে পারবেন না।

আগামী বছর থেকে বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন ফোনে বন্ধ হয়ে যাবে হোয়াটসঅ্যাপ। হোয়াটসঅ্যাপ এর পক্ষ থেকে বলা হয় বলা হয়, আগামী বছর থেকে কয়েকটি মোবাইল প্ল্যাটফর্মে আর সাপোর্ট করবেনা। এর ফলে বিশ্বব্যাপী কয়েক কোটি ফোনে জনপ্রিয় এই মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে না।

এই বছর ৩১ ডিসেম্বরের পর বিশ্বের সব উইন্ডোজ ফোনে বন্ধ হয়ে যাবে হোয়াটসঅ্যাপ। আইওএস ৮ অথবা পুরোনো অপারেটিং সিস্টেমের আইফোনে ২০২০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি থেকে হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহার বন্ধ হবে। এ ছাড়া অ্যান্ড্রয়েড ২.৩.৭ অথবা তার চেয়ে পুরোনো সংস্করণের ফোনে চলবে না হোয়াটসঅ্যাপ।

হোয়াটসঅ্যাপ সম্প্রতি সিস্টেম সমর্থনের জন্য প্রয়োজনীয় বিষয়গুলোর হালনাগাদ করে। তাতে বলা হয়, কমপক্ষে আইওএস ৯, অ্যান্ড্রয়েড ৩.০ চালিত ডিভাইস না থাকলে হোয়াটসঅ্যাপ চালানো যাবে না। ৩১ ডিসেম্বর থেকে সব উইন্ডোজ ফোনে হোয়াটসঅ্যাপ সেবা বন্ধ হয়ে যাবে।

গুরুত্বপূর্ণ যেসব ফোনে হোয়াটসঅ্যাপ চালানো যাবে না এর মধ্যে রয়েছে আইফোন ৫–এর নিচের সব সংস্করণ, সব মাইক্রোসফট লুমিয়া স্মার্টফোন, এইচপি এলিট স্মার্টফোন, ২০১০ সালের আগে বাজারে আসা সব ধরনের অ্যান্ড্রয়েড ফোন। অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মধ্যে রয়েছে গুগল নেক্সাস ওয়ান, স্যামসাং এপিক ফোরজি, মটোরোলা ড্রয়েড এক্স প্রভৃতি।

বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ হচ্ছে, হোয়াটসঅ্যাপ চালাতে প্রয়োজন হলে অপারেটিং সিস্টেম হালনাগাদ করে নিতে হবে, অন্যথায় হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প অ্যাপগুলো ব্যবহার করা শুরু করতে হবে। অনেক পুরোনো অ্যাপ আছে যা যোগাযোগের ক্ষেত্রে হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প হিসেবে পুরোনো ফোন সমর্থন করবে। কিন্তু হোয়াটসঅ্যাপ অতি জরুরি হলে নতুন সিস্টেমের দিকে যাওয়ার বিকল্প নেই।