শেয়ার

কম দামে সেরা জিনিস-টি সবাই-ই চায়। মোবাইলের কথাই ধরুন না। বাজেট বেশি না কিন্তু সেরা কনফিগারেশন চাই-ই চাই।

কিন্তু সাধ আর সাধ্যের সমন্বয় হয়েছে এ রকম ঘটনা ঘটেছে খুব কম-ই। Walton Primo R5 এমন একটি ডিভাইস যা আপনার সাধ্যের মধ্যেই সকল চাহিদা পূরন করতে সক্ষম। মাত্র ১০ হাজার টাকার ডিভাইসে রয়েছে ৪জি সুবিধা সহ আরো অনেক ফিচার। লেটেষ্ট এ্যন্ড্রয়েড ৮.০ ওরিয় সাপোর্টেড ডিভাইসে আরো রয়েছে ৩০০০ মিলি এ্যম্পিয়ার ব্যাটারি, ১৩ এবং ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সহ আরো অনেক ফিচার। আমার রিভিউ এ আমি তুলে ধরবো Primo R5 এর খুটিনাটি সকল বিষয়, ততক্ষন আমার সাথেই থাকুন। প্রথমেই জেনে নেবো Primo R5 এর উল্ল্যেখযোগ্য ফিচার সমূহ:

ডিভাইসের নাম Primo R5
ডিসপ্লে: 5.72″ FULL View HD IPS Display
প্রোটেকশন Scratch Resistant 2.5D Curved Glass
র‌্যাম ২ জিবি
রম ১৬ জিবি ( ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে)
সি.পি.ইউ ১.৩ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর
জি.পি.ইউ Power VR Rogue GE8100
ক্যামেরা রিয়্যার ১৩ মেগাপিক্সেল
ফ্রন্ট ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি ৩০০০ মিলি এ্যম্পিয়ার
দাম ৯,৯৯৯ টাকা।

Primo R5 এর ভালা লাগা ফিচার গুলো:

** ৪জি সাপোর্টেড

** ফিংগার প্রিন্ট সেন্সর

** Android Oreo 8.1, Go Edition

** 18:9 Ful View Scratch Resistant Display

** 3000 mAh Battery

** OTG

ডিসপ্লে এবং টাচ

Primo R5 এ ব্যবহার করা হয়েছে রয়েছে 18:9 ration 5.72” 2.5D Full View  HD IPS Display. ডিসপ্লেতে ২৬ মিলিয়ন কালার সাপোর্ট করে। এছাড়া ৫ আংগুল পর্যন্ত মাল্টিটাচ সাপোর্ট তো রয়েছেই।

র‌্যাম এবং রম

Primo R5 এ  রয়েছে ২ জিবি র‌্যাম এবং ১৬ জিবি ইন্টারনাল মেমোরী।  ইন্টারনাল মেমেরাী ১২৮ জিবি পর্যন্ত বৃদ্ধি করা যাবে।

সি.পি.ইউ / জি.পি.ইউ

Primo R5 এ রয়েছে ১.৩  গিগাহার্টজ কোয়াড কোর প্রোসেসর এবং জি.পি.ইউ রয়েছে Power VR Rogue GE8100.

আনবক্সিং

Primo R5 এর সাথে আপনারা পাচ্ছেন

** একটি Standard Ear phone,

** ইউ এস বি চার্জার উইথ ডাটা কেবল

** ব্যাক কভার

** ওয়্যারেন্টি কার্ড এবং ইউজার ম্যানুয়াল।

গেমিং পারফরমেন্স

Primo R5এ গেমস খেলে মজা পাবেন। ফুল ভিউ ডিসপ্লে-তে, ২ জিবি র‌্যাম, ভালো মানের জি.পি.ইউ হওয়ায় সকল প্রকার গেমস খেলতে পারবেন অনায়াসে।

আউটলুক

Primo R5 এর গঠন দেখলে বোঝার উপায় নেই এটা প্লাষ্টিক মেইড। ডিভাইসটির ব্যাকপার্ট-টি এমন ভাবে ডিজাইন করা হয়েছে হাতে না নিলে বুঝতেই পারবেন না এটি প্লাষ্টিক মেইড।

Primo R5 এর ফ্রন্ট প্যানেলে রয়েছে 5.72” HD IPS Display. ফ্রন্ট প্যানেলে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা ইউজ করা হয়েছে।ভলিউম রকার্স এবং পাওয়ার বাটন রয়েছে ডিভাইসের উপরের দিকে ডান পাশে।

3.5 MM Audio পোর্ট রয়েছে উপরের দিকে। এছাড়া ইউ.এস.বি চার্জিং পোর্ট রয়েছে ডিভাইসের নিচের অংশে।

ডিভাইসের পেছনে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ক্যামেরায় কিছুটা বাম্প থাকায় ব্যাক কাভার ইউজ করাটাই বেটার। না হলে ক্যামেরা গ্লাসে স্ক্র্যাচ পরতে পারে।

ব্যাকপার্ট-টি রিমুভেবল। সিম কার্ড+Micro SD Slot রয়েছে পাশাপাশি।ডিভাইসটি-তে রয়েছে  ৩০০০ মিলি এ্যম্পিয়ার লি-পলিমার ব্যাটারি। ডিভাইসটির দৈর্ঘ্য ১৫২.৪ মিলিমিটার, প্রস্থ্য ৭২.১৮ মিলিমিটার এবং পূরুত্ব ৮.৩ মিলিমিটার। আর ডিভাইসটির ওজন ১৪৫ গ্রাম মাত্র। 

ইউজার ইন্টারফেস

Primo R5 এ ইউজ করা হয়েছে ষ্টক এ্যন্ড্রয়েড ৮.১ এর ইউজার ইন্টারফেস। 

অপারেটিং সিস্টেম

Primo R5 রয়েছে 8.1 Oreo অপারেটিং সিস্টেম।

ক্যামেরা

Primo R5 এর ক্যামেরা কোয়ালিটি মিড রেঞ্জ স্মার্টফোন হিসেবে বেষ্ট। সিংগেল ক্যামেরা দিয়েই রয়েছে পোর্ট্রেইড মোডে ছবি  তোলার সুবিধা।

ক্যামেরা ফিচার গুলো দেখে নিন। ক্যামেরা কোয়ালিটি আমার কাছে ভালো লেগেছে।

কানেক্টিভিটি এবং সেন্সর

Primo R5 এ যে সকল সেন্সর রয়েছে তা হলো: 

Accelerometer (3D), Proximity, GPS ইত্যাদি।
Primo R5 এ যে সকল কানেক্টিভিটি রয়েছে: WI-FI, Bluetooth V4, Micro USB 2.0, OTG, OTA, WLAN Hotspot ইত্যাদি।

স্পেশাল ফিচার

Face ID:

Finger Print দিয়ে যদি আনলক করতে বিরক্ত হন তো রয়েছে জনপ্রিয় আনলক সিস্টেম ফেস আইডি।

** নোটিফিকেশন লাইট:

এই ফিচারটি কিন্তু বেশ উপকারী। ফোন সাইলেন্ট অবস্থায় কোন কল আসলে বা ম্যাসেজ আসলে নোটিফিকেশন লাইট জ্বলতে থাকবে।

** Split Screen:

এক সাথে একাধিক কাজ করার জন্য রয়েছে Split Screen Option যার মাধ্যমে একাধিক এ্যপস একি সাথে কাজ করতে পারবেন।

** Smart Gesture:

Display Off থাকা অবস্থায় বিভিন্ন সাইনের মাধ্যমে এ্যপস অন করার সুবিধা রয়েছে।

বেঞ্চমার্ক স্কোর

Primo R5 এ আমরা এ্যনটুটু এবং গিকবেঞ্চ টেষ্ট করেছি আমি।  চলুন স্কোর- গুলো দেখে নেই।

দাম

Primo R5 এর বাজার মূল্য রাখা হয়েছে ৯,৯৯৯ টাকা। আমার কাছে পার্সোনালী এই বাজেটে এর চেয়ে ভালো স্মার্টফোন চোখে পরেনা।

 

 

 

মন্তব্যসমূহ