শেয়ার

ঈদ ধামাকা হিসেবে ওয়ালটন রিলিজ করলো তাদের নতুন স্মার্টফোন Primo GF7. ছোট প্যাকেট বড় ধামাকা বলতে যা বুঝায় তার সব-ই আছে Primo GF7 এ। ৫,৯৯৯ টাকা মুল্যে এন্ট্রি লেবেলের এই স্মার্টফোনের প্রধান আকর্ষণ হলো ডিভাইসটি ৪জি সাপোর্টেড। আমার রিভিউ এ আমি ডিভাইসটির হাইলাইটেড বিষয় গুলো তুলে ধরবো, এছাড়া অন্যান্য বিষয় নিয়ে আলোচনা তো থাকছেই।

প্রথমেই জেনে নেবো Primo GF7 এর উল্ল্যেখযোগ্য ফিচার সমূহ
ডিভাইসের নাম Primo GF7
ডিসপ্লে: 5.34″ FULL View IPS Display
প্রোটেকশন 2.5D Curved Glass
র‌্যাম ১ জিবি
রম ৮ জিবি ( ৬৪ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে)
সি.পি.ইউ ১.২৫ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর
জি.পি.ইউ মালি ৪০০
ক্যামেরা রিয়্যার ৫ মেগাপিক্সেল
ফ্রন্ট ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি ২৭০০ মিলি এ্যম্পিয়ার
দাম ৫৯৯৯ টাকা।
Primo GF7 এর ভালা লাগা ফিচার গুলো

** ৪জি সাপোর্টেড

** AOD (Always on Display)

** ফিংগার প্রিন্ট সেন্সর

** Android Oreo 8.1, Go Edition (Walton’s First Oreo Device)

** 18:9 Ful View Display

** 27000 mAh Battery

ডিসপ্লে এবং টাচ

Primo GF7 এ ব্যবহার করা হয়েছে রয়েছে 18:9 Ratio যুক্ত 5.34” 2.5D Full View IPS Display. ডিসপ্লের রেজুল্যুশন 480x 960 পিক্সেল। এ্যমোলেড ডিসপ্লে না হলেও Primo GF7 এর ডিসপ্লে’র কালার Vivid & Lively.

র‌্যাম এবং রম

Primo GF7 এ  রয়েছে DDR3 ১ জিবি র‌্যাম এবং ৮ জিবি ইন্টারনাল মেমোরী। ইন্টারনাল মেমেরাী ৬৪ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

সি.পি.ইউ / জি.পি.ইউ

Primo GF7 এ রয়েছে ১.২৫  গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর এবং মালি ৪০০ জি.পি.ইউ.

আনবক্সিং

Primo GF7 এর সাথে আপনারা পাচ্ছেন

** একটি Standard Ear phone,

** ইউ এস বি চার্জার উইথ ডাটা কেবল

** স্ট্যান্ডার্ড ইয়ার ফোন

গেমিং পারফরমেন্স

ব্যক্তিগত ভাবে আমি Primo GF7এর গেমিং পারফরমেন্স নিয়ে সন্তুষ্ট। ফুল ভিউ ডিসপ্লে হবার কারণে গেমিং এক্সপিরিয়েন্স অনেক ভালো। এসফাল্ট ৮, ফিফা ১৪,১৫, এসফাল্ট নাইট্রা এই গেমস গুলো ১৮:৯ রেশিওতে খেলে মজাই আলাদা।

আউটলুক

বাংলাদেশেও যে ভালো কোয়ালিটির স্মার্টফোন তৈরী করা যায় তা ওয়ালটন খুব ভালো ভাবেই প্রমান করেছে। ৫.৩৪” ডিসপ্লে যুক্ত ডিভাইসটির বডিপার্ট প্লাস্টিক মেইড হলেও দেখে বোঝার উপায় নেই।ডিভাইসটির ফ্রন্ট প্যানেলে উপরের অংশে রয়েছে ফ্ল্যাশ লাইট সহ ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

ডিভাইসটির পেছনে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ফিংগার প্রিন্ট সেন্সর রয়েছে ক্যামেরার নিচের দিকে।

Primo GF7 এর উপরের দিকে রয়েছে মাইক্রো ইউ.এস.বি চার্জিং এবং অডিও পোর্ট। ভলিউম রকার্স এবং পাওয়ার বাটন রয়েছে ডিভাইসের উপরের দিকে ডান পাশে। ব্যাকপার্ট-টি রিমুভেবল। সিম কার্ড রয়েছে ব্যাটারির উপরের দিকে। ডিভাইসটি-তে রয়েছে  ২৭০০ মিলি এ্যম্পিয়ার লি-আয়ন ব্যাটারি।ডিভাইসটির দৈর্ঘ্য ১৪৪.৭ মিলিমিটার, প্রস্থ্য ৭০ মিলিমিটার এবং পূরুত্ব ৯.৭ মিলিমিটার। আর ডিভাইসটির ওজন ১৬২ গ্রাম মাত্র।

ইউজার ইন্টারফেস

Primo GF7 এ ইউজ করা হয়েছে ষ্টক এ্যন্ড্রয়েড ৮.১ এর ইউজার ইন্টারফেস। ইউজার ইন্টারফেস বেশ কাষ্টমাইজড।

অপারেটিং সিস্টেম

Primo GF7 এ ইউজ করা হয়েছে লেটেস্ট Android 8.1 Oreo. ইউজারদের সুবিধার জন্য OS কিছুটা অপটিমাইজ করা হয়েছে।

 

ক্যামেরা

এন্ট্রি লেভেলের এই ফোনে ছবি তোলার জন্য উভয় পাশেই রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ক্যামেরার কোয়ালিটি আমাকে হতাশ করেনি মোটেই। ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবি গুলো দেখে নিন।

কানেক্টিভিটি এবং সেন্সর

Primo GF7 এ যে সকল সেন্সর রয়েছে তা হলো: 

Accelerometer (3D), Proximity, GPS ইত্যাদি।
Primo GF7 এ যে সকল কানেক্টিভিটি রয়েছে: WI-FI, Bluetooth V4, Micro USB 2.0, OTG, OTA, WLAN Hotspot ইত্যাদি।

স্পেশাল ফিচার

** Radio with recording system.

এই ফিচারটি কিন্তু বেশ ইফেক্টিভ। বিশেষ  করে যারা গান শুনতে ভালোবাসেন। পছন্দের গান প্লে-ব্যাক শুরু হলেই রেকর্ডিং করতে পারবেন।

** Smart Back Touch:

প্রথমেই আপনাদের বলেছি ডিভাইসটির ফিংগার প্রিন্ট রিয়্যার মাউনন্টেড। ধরুন, আপনি সেলফি তুলবেন কিন্তু হাতে সময় কম। তখন কিন্ত এই ফিংগার প্রিন্ট সেন্সর আপনাকে হেল্প করবে। জাষ্ট ফিংগার প্রিন্ট সেন্সরে একটা টাচ করুন ব্যাস হয়ে গেলো।

** 4G Enabled:

৬ হাজার টাকায় ৪জি সাপোর্টেড কোন ডিভাইস আছে কিনা আমার জানা নেই। কিন্তু Walton মাত্র ৬০০০ টাকার ডিভাইসেই দিচ্ছে ৪জি সুবিধা।

বেঞ্চমার্ক স্কোর

Primo GF7 এ আমরা গিকবেঞ্চ টেষ্ট করেছি। দাম অনুসারে বেঞ্চমার্ক স্কোর কিন্তু বেশ ভালই।

দাম

Primo GF7 এর বাজার মূল্য রাখা হয়েছে ৫,৯৯৯ টাকা। বাংলাদেশে এই দামে এই চেয়ে ভাল ফিচার সম্পন্ন স্মার্টফোন দ্বিতীয়টি খুজে পাবেন না, গ্যারান্টি দিতে পারি।

 

 

 

মন্তব্যসমূহ