শেয়ার

ডিজাইনের দিক দিয়ে এ যাবৎকালে ওয়ালটন যত গুলো স্মার্টফোন বাজারে লঞ্চ করেছে, এর মধ্যে Primo S6 Infinity’র ডিজাইন সবচাইতে “Eye Catching” বলা যায়। ডিভাইসটির স্টানিং লুকস, কালারস কনফিগারেশন সকল কিছু দিয়ে ইউজারদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে সক্ষম। আরো রয়েছে ভালো কোয়ালিটির ডিসপ্লে। আগেই বলে নিচ্ছি Primo S6 Infinity-তে রয়েছে বতর্মান সময়ের ক্রেজ ১৮:৯ ডিসপ্লে aspect ratio.

Primo S6 Infinity –তে রয়েছে 5.5” HD+ IPS Display. সাথে রয়েছ ৩ জিবি র‌্যাম, ৩২ জিবি ইন্টারনাল মেমোরী, ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়্যার ক্যামেরা এবং ৩০০০ মিলি এ্যম্পিয়ার লি-আয়ন ব্যাটারি সহ আরো অনেক ফিচার। ডিভাইসটির মূল্য রাখা হয়েছে ১৬,৯৯০ টাকা।

ডিভাইসের নাম Primo S6 Infinity
ডিসপ্লে: 5.5″ Full View HD+ Display
প্রোটেকশন Gorilla Glass 3
র‌্যাম 3 জিবি
রম ৩২ জিবি ( ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে)
সি.পি.ইউ ৬৪ বিট ১.৩ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর
জি.পি.ইউ মালি টি৭২০
ক্যামেরা রিয়্যার ১৩ মেগাপিক্সেল
ফ্রন্ট ৮ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি ৩০০০ মিলি এ্যম্পিয়ার
দাম ১৬,৯৯০ টাকা।
ডিসপ্লে এবং টাচ

Primo S6 Infinity এ রয়েছে ৫.৫” Full View HD+ Display. ডিসপ্লের রেজুল্যুশন ১৪৪০ * ৭২০ পিক্সেল।. ডিসপ্লে-র প্রোটেকশনের জন্য রয়েছে গরিলা গ্লাস ৩.

র‌্যাম এবং রম

Primo S6 Infinity এ ব্যবহৃত হয়েছে ৩ জিবি র‌্যাম এবং ৩২ জিবি ইন্টারনাল মেমোরী রয়েছে।  ইন্টারনাল মেমেরাী ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

 

সি.পি.ইউ / জি.পি.ইউ

Primo S6 Infinity এ রয়েছে ৬৪ বিট ১.৩ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর এবং মালি টি৭২০ জি.পি.ইউ।

আনবক্সিং

Primo S6 Infinity এর সাথে আপনারা পাচ্ছেন

** একটি Standard Ear phone,

** ইউ এস বি চার্জার উইথ ডাটা কেবল

**  সিম ইজেক্টর

** স্ট্যান্ডার্ড ইয়ার ফোন

** ট্রান্সপারেন্ট ব্যাক কভার।

আউটলুক

চোখা ধাধানো ডিজাইনের Primo S6 Infinity’র আউটলুক এক কথায় অসাধারণ। বিশেষ করে Blue কালার ডিজাইন। মেটালিক স্ট্রাকচারে গঠিত Primo S6 Infinity-তে রয়েছে ৫.৫” Full View HD+ Display. ফ্রন্ট প্যানেলে উপরের দিকে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা এবং প্রক্সিমিটি সেন্সর। এছাড়া নেভিগেশন বার গুলো রয়েছে ডিসপ্লে-তেই।

ভলিউম রকার্স এবং পাওয়ার বাটন রয়েছে ডিভাইসের উপরের দিকে ডান পাশে।

মাইক্রো ইউ এস বি পোর্ট, ৩.৫ মিলিমিটার অডিও পোর্ট রয়েছে ডিভাইসের নিচের দিকে। এছাড়া সিমকার্ড+এস.ডি কার্ড রয়েছে ডিভাইসের ডান পাশে।রিয়্যার প্যানেলে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা এবং বায়োমেট্রিক ফিংগার প্রিন্ট সেন্সর।

ব্যাকপার্ট-টি নন রিমুভেবল। ব্যাটারি ব্যাকাপ রয়েছে ৩০০০ মিলি এ্যম্পিয়ার। ডিভাইসটির দৈর্ঘ্য ১৪৮ মিলিমিটার, প্রস্থ্য ৭১.৫ মিলিমিটার এবং পূরুত্ব ৮.১ মিলিমিটার। আর ডিভাইসটির ওজন ১৪৬ গ্রাম মাত্র।

উপরের আলোচনা গুলো একটু মিলিয়ে নিন।

ইউজার ইন্টারফেস

Primo S6 Infinity এর ইউজার ইন্টারফেজ standard Quality’র।  এ্যপ আইকন থেকে শুরু করে নোটিফিকেশন বার গুলো ভালোভাবে ইউটিলাইজ করা হয়েছে।

অপারেটিং সিস্টেম

Primo S6 Infinity এ অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে পাবেন Android 8.0 Oreo.

ক্যামেরা

ক্যামেরা কোয়ালিটি নিয়ে অভিযোগ নেই। বাজেটের তাল মিলিয়ে সমসাময়ী ডিভাইস গুলোর সাথে তুলনা করলে Primo S6 এর ক্যামেরা কোয়ালিটি বেশ ভালো। Primo S6 Infinity এ সামনের দিকে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। এছাড়া রিয়্যার প্যানেলে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। 

কানেক্টিভিটি এবং সেন্সর

Primo S6 Infinity এ যে সকল সেন্সর রয়েছে তা হলো: Accelerometer, Gravity, Light, Proximity, Magnetic Field, Orientation, Rear Fingerprint Scanner, Hall Sensor ইত্যাদি।

Primo S6 Infinity এ যে সকল কানেক্টিভিটি রয়েছে: Wi-Fi, Bluetooth V4, Hotspot, OTG with Reverse Charging, Wireless Display (Cast Screen) ইত্যাদি।

স্পেশাল ফিচারস

** মাল্টি উইন্ডো: যারা এক সাথে একাধিক কাজ করতে পছন্দ করেন তাদের জন্য উপকারী ফিচার এটি। তবে ব্যাক গ্রাউন্ডে একাধিক এ্যপ চালু থাকলে মোবাইল স্লো হতে পারে।

** OTG: Primo S6 Infinity-তে আপনারা OTG ক্যাবলের মাধ্যমে মাউস, কিবোর্ড, এবং পেন ড্রাইভ ইউজ করতে পারবেন।

** Screen recorder: Primo S6 Infinity-তে রয়েছে বিল্ট ইন স্ক্রিন রেকর্ডার।

** ফেস-আনলক: ফিংগার প্রিন্টট সেন্সর এক ঘেয়েমি লাগলে ফেস আনলক অপশসন ইউজ করতে পারেন। অথবা এক সাথে ২টোই ইউজ করতে পারবেন।

বেঞ্চমার্ক স্কোর

Primo S6 Infinity এর এ্যনটুটু বেঞ্চমার্ক স্কোর এসেছে ৩৯,৫৮৪, শুধু তাই নয়, গিকবেঞ্চ স্কোরও আমরা করেছি। চলুন স্কোর গুলো দেখে নেই।

দাম

Primo S6 Infinity এর বাজার মূল্য রাখা হয়েছে ১৬,৯৯০ টাকা। আমার কাছে পার্সোনালী এই বাজেটে এর চেয়ে ভালো স্মার্টফোন চোখে পরেনা।

 

 

 

মন্তব্যসমূহ