শেয়ার

হ্যালো মোবাইল লাভারস, ভালো আছেন নিশ্চয়-ই।

বরাবারের মত আবারো হাজির হলাম Walton এর আরো একটি স্মার্টফোনের রিভিউ নিয়ে। আজকে কথা বলবো আমি Walton Primo GH7 নিয়ে।

মাত্র ৫,৯৯৯ টাকার ডিভাইসে বাংলাদেশে প্রথম বারের মত ব্যবহার করা হয়েছে ১৮:৯ Aspect ratio, রয়েছে ৫.৪৫” Full View IPS display, ১ জিবি র‌্যাম, ৮ জিবি রম, ৫ মেগাপিক্সেলে ফ্রন্ট ক্যামেরা উইথ ফ্ল্যাশ লাইট।

ডিভাইসটির ডিসপ্লে, বিল্ট কোয়ালিটি, ক্যামেরা পারফরমেন্স এবং অন্যান্য ফিচার গুলো নিয়ে কথা বলবো আমার আজকের রিভিউ-এ। চলুন প্রথমে দেখে নেই ডিভাইসটির কনফিগারেশন এক ঝলকে:

ডিভাইসের নাম Primo GH7
ডিসপ্লে: 5.45″ Full View IPS Display
2.5D Curved Glass (FWVGA)
প্রোটেকশন নেই
র‌্যাম ১ জিবি
রম ৮ জিবি ( ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে)
সি.পি.ইউ ১.৩ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর
জি.পি.ইউ মালি ৪০০
ক্যামেরা রিয়্যার ৮ মেগাপিক্সেল
ফ্রন্ট ৫ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি ২৫০০ মিলি এ্যম্পিয়ার
দাম ৫,৯৯৯ টাকা
আনবক্সিং

Primo GH7  এর সাথে আপানার যে সকল জিনিস পাচ্ছেন:

** Standard Ear phone.

** ট্র্যান্সপারেন্ট ব্যাক কভার

**  ইউ এস বি চার্জার উইথ ডাটা কেবল

** ইউজার ম্যানুয়াল এবং ওয়্যারেন্টি কার্ড।

অপারেটিং সিস্টেম।

Primo GH7 এ রয়েছে এ্যন্ড্রয়েড নোগাট ৭.০ অপারেটিং সিস্টেম।

ইউজার ইন্টারফেস:

Primo Gh7 এ স্টক ইউজার ইন্টারফেস বিদ্যামান। খুব বেশি নতুনত্ব নেই এই স্মার্টফোনের ইউজার ইন্টারফেসে।

ডিসপ্লে

এই প্রথম বাংলাদেশী স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে Full View Technology. Primo GH7 এ রয়েছে ৫.৪৫” (2.5D Curved) Full View IPS Display যার aspect ratio হলো 18:9. ডিভাইসটির রেজুল্যুশন হলো 960 X 480 Pixel.ডিভাইসটির ডিসপ্লে টাইপ FWVGA আর এতে ব্যবহার করা হয়েছে IPS technology. ডিসপ্লে-তে ২৬ মিলিয়ন কালার সাপোর্ট করে। টাচ সেন্সেটিভিটি সুপার্ব কোয়ালিটির, ২ আংগুল পর্যন্ত মাল্টি টাচ সাপোর্ট করে ডিভাইসটিতে।

র‌্যাম এবং রম

Primo GH7-এ রয়েছে ১ জিবি DDR3 র‌্যাম এবং ৮ জিবি ইন্টারনাল মেমোরী রয়েছে। ৩২ জিবি এক্সট্রা মেমোরী কার্ড ইউজ করার সুবিধা পাবেন।

সি.পি.ইউ / জি.পি.ইউ

Primo GH7- এ ১.৩ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রোসেসর সিপিইউ ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়া গ্রাফিক্স প্রোসেসিং এর জন্য পাবেন মালি ৪০০ জি.পি.উ.

ডিজাইন এবং বিল্ড কোয়ালিটি

ওয়ালটন-কে সাধুবাদ জানাই Primo GH7 এর ডিজাইন এবং বিল্ট কোয়ালিটি নিয়ে। Primo Gh7 আপনাদের সামনে হাজির হয়েছে ৪ রঙের ডিজাইন নিয়ে।ডিভাইসটির বিল্ট কোয়ালিটি নিয়ে একটু আলোচনা করে নেই। ডিভাইসটি হাতে নিলেই প্রথমেই যেটা মনে হবে তা হলো “ডিভাইসটি মেটালিক বিল্ট”, আসলে ডিভাইসটির ব্যাক কভারটি মেটালিক টেক্সচারের মিশ্রনে তৈরী। মূলত এই কারনেই ডিভাইসটির লুকস এতো গর্জিয়াস।

ডিভাইসটির ফ্রন্ট প্যানেলে উপরের দিকে রযেছে ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা উইদ সফ্ট ফ্ল্যাশ লাইট।  এছাড়া ৩টি ক্যাপাসিটিভ টাচ প্যানেল রয়েছে ডিসপ্লে নিচের দিকে।

ভলিউম রকার্স এবং পাওয়ার বাটন রয়েছে ডিভাইসের ডান পাশে উপরের দিকে।

মাইক্রো ইউ এস বি পোর্ট এবং ৩.৫ মিলিমিটার অডিও পোর্ট রয়েছে ডিভাইসের উপরের দিকে। ডিভাইসটির ব্যাক কভারটি সম্পূর্ণ রিমুভেবল। রিয়্যার প্যানেলে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ক্যামেরায় ডুয়ালটোন ফ্ল্যাশ লাইট ইউজ করা  হয়েছে।

ব্যাক কভারের নিচে রয়েছে ২৫০০ মিলি এ্যম্পিয়ার লি-আয়ন ব্যাটারি। সিম কার্ড ট্রে এবং এস.ডি কার্ড স্লট রয়েছে পাশাপাশি।

ক্যামেরা

Primo GH7 এর রিয়্যার প্যানেলে রয়েছে BSI sensor যুক্ত ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ক্যামেরা সাথে রয়েছে ডুয়াল টোন এল.ই.ডি ফ্ল্যাশ লাইট। সেলফি তোলার জন্য ফ্রন্ট প্যানেলে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। সেলফি ক্যামেরায় ফ্রন্ট ফ্ল্যাশ ব্যবহার করায় লো-লাইটে সেলফি তোলা যাবে। এছাড়া হালের ক্রেজ পোর্ট্রেইট মোডে ছবি তোলার সুবিধা রয়েছে Primo GH7 এ।

ক্যামেরার ফিচার গুলো হলো: BSI Sensor, Digital Zoom, Self-timer, Touch Shot, Auto-Focus, Continuous Focus, Touch Focus ইত্যাদি।

কানেক্টিভিটি এবং সেন্সর

Primo GH7 এ যে সকল সেন্সর রয়েছে তা হলো: Accelerometer (3D), Gravity (3D) Light (Brightness) Proximity sensor, GPS with A-GPS ইত্যাদি। Primo GH7 এ যে সকল কানেক্টিভিটি রয়েছে: Wi-Fi, Bluetooth V4, Micro USB V2, WLAN Hotspot, HSPA+ ইত্যাদি।

স্পেশাল ফিচারস

Primo GH7 এর বেশ কিছু ফিচার আমার কাছে ভালো লেগেছে। চলুন জেনে নেই ফিচার গুলো।

** 2.5D Curved Glass

** Smart Gesture

** 3D Touch

** Notification Light

** Split Dual Screen

** ব্যাটারি সেভার সহ আরো অনেক কিছু।

বেঞ্চমার্ক স্কোর

আমি Primo GH7 এর বেঞ্চমার্ক স্কোর করেছি। একটু স্কোর গুলো দেখে নিন।

দাম

Primo GH7 এর মূল্য রাখা হয়েছে ৫,৯৯৯ টাকা মাত্র।

 

 

 

 

 

 

 

 

মন্তব্যসমূহ