শেয়ার

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘ভালো সময়’ কাটানোর উদ্দেশ্যে ‍নিয়েই ফেসবুক যাত্রা শুরু করেছিল। কিন্তু সেই ভালো সময় আর কাটাতে পারছেন না ফেসবুক ব্যবহারকারীরা-এমনটাই মনে করছেন ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, সংবাদমাধ্যম বা তারকাদের পোস্টের ভিড়ে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা তার নিউজ ফিডে তারই নিকট জনের বিভিন্ন পোস্ট দেখতে পান না। ঘনিষ্ঠজনদের সঙ্গে মিথষ্ক্রিয়া কমার পাশাপাশি বিরক্তিও বাড়ছে।

লক্ষ্য থেকে বিচ্যুত হতে থাকা ফেসবুককে মূলধারায় ফিরিয়ে আনতে উদ্যোগী হয়েছে কর্তৃপক্ষ। বাণিজ্যিক পোস্টের বদলে এখন থেকে নিউজ ফিডে ব্যবহারকারীর পরিবারের সদস্য, বন্ধু-বান্ধব ও পরিচিতজনদের পোস্টকে অধিক গুরুত্ব দেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এমনটি জানালো বিশ্বের অন্যতম  এবং বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক।

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গ তার ফেসবুক পাতায় বলেন, “সপ্তাহ্খানেকের মধ্যেই ব্যবহারকারীরা তাদের নিউজফিডে বড় ধরনের পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

 

তিনি আরও বলেন, “বিভিন্ন মানুষকে কাছে আনাই ফেসবুকের মূল উদ্দেশ্য। সাধারণ ব্যবহারকারীদের শেয়ার করা পোস্টগুলোই বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনে মুখ্য ভূমিকা পালন করে।”

জাকারবার্গ বলেন, “ব্যবহারকারীরা বহুদিন ধরেই অভিযোগ করেছেন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, ব্র্যান্ড ও সংবাদ মাধ্যমের পোস্টের ভিড়ে ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলো উপেক্ষিত হচ্ছে। অভিযোগটি আমরা গুরুত্বের সঙ্গে আমলে নিয়েছি।”

বিশেষজ্ঞদের মতে, এ পরিবর্তনের ফলে বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে শেয়ার করা পোস্টগুলোর জনপ্রিয়তা হারানোর সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি বিশ্বজুড়ে অনলাইন সংবাদ মাধ্যমও ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে।যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের নিম্যান জার্নালিজম ল্যাবের উপ-সম্পাদক লরা হ্যাজার্ড ওয়েন বলেন, সংবাদ প্রকাশকরা এতে ক্ষতিগ্রস্ত হতে চলেছেন। কারণ, প্রকাশকদের পোস্টগুলো নিউজফিডে আগের চেয়ে কম দেখানো হবে।নিউজ ফিড বদলের কথা ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এর আগে বললেও, পরবর্তীতে এ ধরনের কোনো কার্যক্রম দেখা যায়নি। তবে ব্যবসা সংক্রান্ত মার্কিন গণ মাধ্যম বিজনেস ইনসাইডার বলছে, এবার জাকারবার্গ ফেসবুকে ফলপ্রসূ পরিবর্তন আনতে কাজ করছেন।
সূত্র-ফেসবুক,Jamuna Tv

মন্তব্যসমূহ