শেয়ার

আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো ২০১৬ সালের সেরা ৭টি স্মার্টফোন, যে গুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে লেটেষ্ট Snap dragon 821 Chipset.

চলুন দেরী না করে দেখে নেয়া যাক সেরা ৭টি এ্যন্ড্রয়েড স্মার্টফোন উইথ Snapdragon 821 Chipset.

৭. ‍Smartisan M1/M1L

এই দুটি ডিভাইসেই রয়েছে Snap dragon 821 Chipset. এদের মধ্যে Smartisan M1 এর ডিসপ্লে  5.15” Full HD (1920 x 1080 pixels). আর M1L এর ডিসপ্লে হলো 5.7-inch Quad HD (2560 x 1440 pixels) in-cell display from Sharp. দুটি ডিভাইসেই রয়েছে Android based Smartisan OS 3.0screenshot_1ডিভাইস গুলোর প্রোসেসর রয়েছে 2.35GHz Snapdragon 821 quad-core processor আর জি পি ইউ রয়েছে Adreno 530 যার clocked ‍speed  653MHz. এছাড়া র‌্যাম রয়েছে 4GB/6GB LPDDR4 এবং রম রয়েছে  32GB/64GB. ক্যামেরায় রয়েছে  23MP Sony IMX318 sensor with f/2.0 aperture, PDAF, OIS, and laser autofocus.

ডিভাইস দুটির দাম যথাক্রমে ৩১ হাজার টাকা এবঙ ৩৬ হাজার টাকা।

৬. LeEco Le Pro 3

ইদানিং চাইনিজ মোবাইল গুলো পুরো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিচ্ছে কম দামে সুপার্ব কনফিগের মোবাইল দিয়ে। LeEco এদের মধ্যে নতুন সংযোজান। ডিভাইসটিতে রয়েছে ৫.৫” ফুল এইচ ডি ডিসপ্লে। র‌্যাম রয়েছে ৪ জিবি’র সাথে ৩২ জিবি/ ৬৪ জিবি এবং ৬ জিবি র‌্যামের সাথে রয়েছে ৬৪ জিবি/১২৮ জিবি ইন্টার মেমোরী ভার্সন।screenshot_2ফ্রন্ট ক্যামেরায় রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল এবং সেলফি তোলার জন্য রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

৪০৭০ মিলি এ্যম্পিয়ার ব্যাটারী যুক্ত ডিভাইসটি বাংলাদেশে ৩২ হাজার টাকায় মধ্যেই পাওয়া যাচ্ছে।

৫. Asus Zenphone 3 Deluxe

আসুসের সবচাইতে প্রমিসিং ডিভাইস এটি। ৫.৭” ডিসপ্লেতে ব্যবহার করা হয়েছে এ্যমোলেড টেকনোলজি। এটি-ই বিশ্বের প্রথম স্মার্টফোন যার এ্যন্টেনা বার ব্যবহার করা হয়েছে মোবাইলের ভিতরেই।screenshot_5

ডিভাইসটির মেমোরী ভার্সন যথাক্রমে 64/128/256 GB ইন্টারনাল মেমোরী,  4/6 GB RAM.

screenshot_3আরো রয়েছে শক্তিশালী 23 MP ক্যামেরা যার এ্যপাচার হলো  f/2.0, সাথে রয়েছে laser/phase detection autofocus প্রযুক্তি। এছাড়া  OIS (4-axis), dual-LED (dual tone) flash এই গুলো তো রয়েছেই।screenshot_6

ডিভাইসটিতে ব্যাটারী ৩০০০ মিলি এ্যম্পিয়ার। আর দাম বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ৪০ হাজারের কাছাকাছি।

৪. Xiaomi Mi5s

চাইনিজ এ্যপল বলা হয়ে থাকে Xiomi-কে। মানসম্মত ডিভাইস আর সাশ্রয়ী দামের কারণে শাওমি ইতিমধ্যে এশিয়ার প্রায় সকল দেশেই ক্রেতাদের কাছে গ্রহনযোগ্যতা পেয়েছে। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশের ইউজাররাও এখন শাওমির দিকে ঝুকছে।screenshot_7শাওমির প্রথম ডিভাইস তথা বিশ্বের প্রথম ডিভাইস যেটাতে ব্যবহার করা হয়েছে Ultrasonic Finger Print scanning প্রযুক্তি। এছাড়া 3D Touch প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে (৪ জিবি র‌্যাম ভার্সনে) ডিভাইসটিতে। আরো রয়েছে ৫.১৫” ফুল এইচ ডি ডিসপ্লে। সাথে রয়েছে ৩ জিবি/ ৪ জিবি র‌্যাম। এছাড়া ইন্টারনাল মেমোরী রয়েছে ৬৪ জিবি/১২৮ জিবি পর্যন্ত। ক্যামেরা রয়েছে যথাক্রমে ১২/৪ মেগাপিক্সেল। আর ব্যাটারী রয়েছে ৩২০০ মিলি এ্যম্পিয়ার ব্যাটারী।screenshot_8ডিভাইসটির বাংলাদেশী দাম (৩জিবি র‌্যাম) ৩৩,০০০ টাকা।

৩. Xiaomi Mi Note 2

এই বছরটা শাওমির জন্য একটা বৈপ্লবিক বছর বটে। মানসম্মত আর মনকাড়া ডিজাইনের বেশ কিছু ডিজাইন বাজারে এনেছে শাওমি। এদের মধ্যে Mi Note 2 অন্যতম। গ্যালাক্সি এস ৭ এজের মত বাকানো ডিসপ্লে রয়েছে ডিভাইসটিতে। ডিসপ্লেতে ব্যবহার করা হয়েছে ফ্লেক্সিবল ওলেড ডিসপ্লে।screenshot_9

র‌্যাম এবং রম রয়েছে যথাক্রমে ৪/৬ জিবি,  ৬৪/১২৮ জিবি। ক্যামেরায় থাকছে শক্তিশালী ২২.৫ মেগাপিক্সেল শক্তিশালী ক্যামেরা।screenshot_10আর সেলফি তোলার জন্য রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।screenshot_11ডিভাইসটির ব্যাটারী রয়েছে ৪০৭০ মিলি এ্যম্পিয়ার লি-আয়ন ব্যাটারী আর বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ৪০ হাজারের কাছাকাছি দাম হতে পারে ডিভাইসটির।

২. Google Pixel/XL

গুগলের তৈরী প্রথম স্মার্টফোন। ডিজাইনের দিক দিয়ে গুগলের সকল মোবাইলের চাইতে বেষ্ট স্মার্টফোন বলা যেতে পারে। ২টি ভার্সনের ডিভাইসে ডিসপ্লে রয়েছে যথাক্রমে ৫” ৫.৫” আর ডিসপ্লেতে ব্যবহার করা হয়েছে এ্যমলেড প্রযুক্তি।screenshot_12

DXO Meter এ সর্বোচ্চ রেটিং প্রাপ্ত ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে ডিভাইস ২টিতে। র‌্যাম রয়েছে ৪ জিবি। ডিভাইসটিতে Snapdragon 821 chipset ব্যবহার করা হলেও তা Downgrade করে Clock speed 820 করা হয়েছে। গুগলের ডিভাইস হিসেবে অনেক দাম ডিভাইস গুলোর।

বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ৭০ হাজার টাকা+ দাম ডিভাইসটির।

১. Xiaomi Mi Mix

ডিজাইনের দিক দিয়ে Xiaomi Mi Mix ডিভাইসকে শাওমির জন্য চ্যালেঞ্জিং বটে। ৬.৪” ফ্যাবলেটের ডিসপ্লে প্রায় বেজেল লেস-ই বলা চলে। ডিভাইসটি হাতে নিলেই বোঝা যাবে। ডিভাইসের ফ্রন্ট প্যানেলের পুরোটাই ডিসপ্লে। সেলফি ক্যামেরা রয়েছে ডিসপ্লের একদম নিচের দিকে। এছাড়া র‌্যাম এবং রম রয়েছে যথাক্রমে ৪/৬ জিবি এবং ৬৪/১২৮ জিবি।screenshot_13ক্যামেরায় রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল শক্তিশালী ক্যামেরা। আর সেলফি তোলার জন্য রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।

ডিভাইসটির ব্যাটারিতে রয়েছে ৪৪০০ মিলি এ্যম্পিয়ার লি আয়ন ব্যাটারী। তবে ডিভাইসটির দাম বাংলাদেশী টাকায় ৪০ হাজারের উপরে হবে এই বিষয়ে সন্দেহ নাই।

 

 

 

মন্তব্যসমূহ