Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
শেয়ার

Walton Primo Rh2, Hands ON Review [Exclusive]

বর্তমান বিশ্বে স্মার্টফোনের ব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলেছে। মূলত এটি একটি বহনযোগ্য ডিভাইস যাতে কম্পিউটারের প্রায় সকল কাজ করা যায়। বর্তমান বিশ্বে স্মার্টফোনের চাহিদা দিন দিন বারছে । তৈরী হচ্ছে একটি নতুন জাগরন । সবাই চায় একটি ফাস্ট,স্টাইলিশ ও ভালো ব্যাটারি ব্যাকাপ যুক্ত ফোন । তাই ক্রেতাদের কথা মাথায় রেখে দেশীয় কম্পানী Walton নিয়ে এলো মিডিয়াম রেঞ্জের আরো একটি অসাধারণ ফোন Walton Primo RH সিরিজের নতুন আরো একটি ফোন Walton Primo Rh2. সুপার ফাষ্ট অক্টাকোর প্রসেসর, 1 gb র‌্যাম ও শক্তিশালী ব্যাটারি নিয়ে ফোনটি বাজারে এসেছে । সাথে আছে OTA আপডেট সুবিধা ও OTG । ফোনটির বাজার মূল্য 9,990 টাকা । এখন আমরা এই ফোনটির হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার পারফরমেন্সএবং ক্যামেরা নিয়ে আলোচনা করবো । চলুন দেখে আসি ফোনটির প্রধান ফিচার সমূহ –

  •  এন্ড্রয়েড 4.4.2 কিটক্যাট ।
  •  5” Pure black IPS, capacitive touchscreen
  • ডিসপ্লে 1290*720, Supports 26 M Color
  •  1.4 গিগাহার্জ মিডিয়াটেক অক্টা কোর প্রসেসর
  •  মালি 450 জি.পি.ইউ
  •  1 জিবি র‌্যাম ও 8 জিবি রম ।
  •  8 মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা (With Omni Vision Sensor) & 2 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা ।
  •  2000 মিলিঅ্যাম্পয়ার লিথিয়াম পলিমার (li-ion) ব্যাটারি ।
  •  OTG ও OTA সাপোর্ট ।
  •  ডুয়েল সিম (Both 3G) ।

primo RH2 specs V1

 আনবক্সিং :

Walton Primo RH2 ফোনটির সাথে আপনি আরো পাচ্ছেন –

  • হ্যান্ডসেট ।
  • চার্জার ।
  • ডাটা ক্যাবল ।
  • OTG ক্যাবল ।
  • 3.5mm Ear Piece
  • ইউজার ম্যানুয়াল ও ওয়ারেন্টি কার্ড ।
  • একটি ফ্রী স্ক্রীন Protection পেপার ।
  • একটি সুদৃশ্য কভার।

Screenshot_1

অপারেটিং সিস্টেম :

Walton Primo RH2 ফোনটি এন্ড্রয়েড 4.4.2 কিটক্যাট অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চালিত । এছাড়া যখনি আপডেট আসবে আপনারা OTA দ্বারা OS Upgrade করতে পারবেন।

Screenshot_2015-01-01-08-08-43

ডিজাইন ও বিল্ড কোয়ালিটি :

Walton Primo RH2 ফোনটির ডিজাইন Rh থেকে একটু আলাদা। সম্পূর্ণ নতুন একটি ডিজাইন নিয়ে হাজির হয়েছে হ্যান্ডসেটটি । বাজি ধরে বলতে পারি এইরকম ডিজাইনের আরেকটি ফোন খুঁজে পাবেন না দেশের বাজারে । ফোনটিতে খুব একটা বেজেল নেই ডিসপ্লের পাশে । পিছনের দিকে বডি টা সামান্য কার্ভড বা বাকানো যা ফোনটিকে অনেক কমফোর্টেবল করবে যখন হাতে নিবেন । এছাড়া ফুল ব্ল্যাক ডিসপ্লে বলে দেখতেও ভালো লাগে ।

ফোনটির ডান পাশে রয়েছে পাওয়ার বাটন এবং ভলিউম রকার বাটন । উপরে রয়েছে ইউ.এস.বি পোর্ট ও 3.5mm অডিও পোর্ট আর নিচের দিকটা একেবারেই খালি । সামনে আছে ফ্রন্ট স্পীকার,নোটিফিকেশন লাইটস ও সেন্সরস। এর নিচে আছে 3 টি নতুন ডিজাইনের ক্যাপাসিটিভ টাচ Key । ফোনটির ব্যাকপার্টে নজর দিলে আপনারা পাবেন 8mp রিয়ার ক্যামেরা with  LED ফ্লাশ এবং একদম নিচে লাউড স্পীকার। ফোনটির বডি ডাউমেনশন হলো 140 x 71.9 x 7.9 mm  ফোনটির ওজন ব্যাটারি সহ মাত্র ১৩২ গ্রাম যা খুব একটা বেশী নয়। এছাড়া ফোনটির ব্যাকপার্ট Open করলে পাবেন একটি  2,000 mah ব্যাটারি ও তার উপরে দুটি সিম স্লট । সাথে আছে মাইক্রো এসডি কার্ড স্লট ।

ফোনের ডিজাইন,বিল্ড কোয়ালিটি এর কিছু স্থির চিত্র –

Screenshot_2Screenshot_3Screenshot_4Screenshot_5Screenshot_6Screenshot_7Screenshot_8Screenshot_9Screenshot_10Screenshot_11

CPU & GPU & Chipset : 

হ্যান্ডসেটটিতে 1.4 গিগাহার্জ শক্তিশালী অক্টা কোর প্রসেসর ব্যাবহার করা হয়েছে । যারফলে আপনারা পাবেন সলিড পারফরমেন্স। মাত্র 9,990 টাকায় অক্টাকোর প্রসেসরের কারনে ওয়াল্টনকে ধন্যবাদ না দিলেই নয়। তারসাথে GPU বা গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট হিসেবে মালি 450 ব্যাবহার করা হয়েছে যা মালি 400 থেকে Far Better GPU.  তাই গেমিং ও HD ভিডিও প্লে’র ক্ষেত্রে আপনি পুরোপুরি সন্তুষ্ট হবেন।

ফোনটিতে MTK 6592 চিপসেট রয়েছে যা 65 সিরিজর বেস্ট চিপসেট । তাই CPU ও GPU নিয়ে নিশ্চিন্তে থাকতে পারেন।

CPU

র‌্যাম ও রম :

Walton Primo RH2 হ্যান্ডসেটটিতে রয়েছে 1gb র‌্যাম ও 8gb রম । অক্টা কোর প্রসেসর এর সাথে 1gb র‌্যাম হয়তো একটু বে-মানান তবে দামের দিকেও Walton বিবেচনা করেছে বিধায় 1 GB Ram দেয়া হয়েছে।। 1gb র‌্যাম এর মধ্যে 952 mb ইউজার এভেইলেবল । দেখা যাচ্ছে প্রয়োজনীয় সব এপস ইনস্টল ও কিছু এপস রানিং থাকার পরও 40-45% র‌্যাম খালি থাকে । তাই র‌্যাম নিয়ে খুব চিন্তা করতে হবে না ।

Total 8 gb রম এর মধ্যে 5.84 GB ROM আপনি Unified Storage হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। আর বাকি যায়গা টুকু মোবাইলের OS নিয়ে নিচ্ছে।  এছাড়াও সাথে 32 gb পর্যন্ত মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহারের স্বাধীনতা তো আছেই  ।

Ram

ডিসপ্লে ও টাচ :

হ্যান্ডসেটটিতে 5” Pure black IPS, capacitive touchscreen ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে যার রেজুলেশন 720*1280. ফোনটির স্কিন dpi বা Dot Per Inch হচ্ছে 320 যা চমৎকার। তাই ডিসপ্লে হবে উজ্জল, কালারফুল। তাছাড়া IPS ডিসপ্লে হওয়ায় চার্জ বেশ কম খরচ হয় ।  ফোনটির ডিসপ্লেতে ব্যবহার করা হয়েছে 2nd Gen Gorilla Glass, তাই স্ক্র্যাচ নিয়ে আপনাকে টেনশন করতে হবে না।এছাড়া ফোনের সাথে আপনি পাচ্ছেন এক্সট্রা স্ক্রিন প্রটেকটর। ডিভাইসটির টাচ রেসপন্স ও চমৎকার । ফোনটি বেশ কিছুক্ষন ব্যবহার করে ল্যাগ এর দেখা পাইনি । Walton Primo RH2, 5 ফিংগার মাল্টি টাচ সাপোর্টেড ।

26 M Color আসলে কি?

প্রশ্ন করতে পারেন, মোবাইলে 16 M Color দেখেছি বা শুনেছি। কিন্তু এই 26 M Color আসলে কি বা কি বিশেষ সুবিধা পাবো? এই সুবিধার ফলে আপনার মোবাইলে ২৬ মিলিয়ন কালার সাপোর্ট করবে। শুধু তাই নয়, মোবাইলের Video Resolution হবে আরো উজ্বল এবং জীবন্ত। বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত একমাত্র Walton Primo Rh2-তেই 26 M Color আছে।

 

RH2 700-1-500x500

ইউজার ইন্টারফেস (UI) :

ফোনটির ইউজার ইন্টারফেস আমার কাছে ভালোই লেগেছে । Android 4.4.2 বেসড ui টাকে বেশ সিম্পল রাখার চেস্টা করেছে walton বলতে গেলে প্রায় অন্যসব Walton এর Kitkat Device এর মতোই। তবে এটা বলতে পারি সব মিলিয়ে বেশ সুন্দর এবং গোছানো ইউজার ইন্টারফেস রয়েছে RH2 ফোনটি-তে । Home, notification panel, app drawer, system apps সহ প্রতিটা Icon-ই দেখতে দৃষ্টি নন্দন। আর তাছাড়া বিভিন্ন ফোনের ডিফল্ট থিম রয়েছে বেশ কিছু। আর তাছাড়া আপনারা চাইলে Next launcher সহ যে কোন লঞ্চার ব্যবহারের সুবিধা তো রয়েছেই।

ক্যামেরা :

স্মার্টফোনের এর উল্লেখযোগ্য দিক হলো এর ক্যামেরা। এমন অনেক মানুষ আছে যারা কেবল ক্যামেরা দেখেই স্মার্টফোন কিনেন । তাদের কথা মাথায় রেখে Walton তাদের নতুন হ্যান্ডসেট RH2 এ দিয়েছে 8 মেগা পিক্সেল অটো ফোকাস ক্যামেরা যা ওমনি ভিশন সেন্সর যুক্ত । নতুন ধরনের এই সেন্সরের কারনে আপনি পাবেন ফাস্ট ও ভালো লো-লাইট ছবি তোলার সুবিধা।  তার সাথে তো ভালো মানের ফ্লাশ রয়েছেই । আর এ্রই মোবাইলের ক্যামেরা ফিচারের মধ্যে রয়েছে BSI sensor, Autofocus, LED flash, HDR, panorama. এছাড়া আপনারা ক্যামেরা দিয়ে সহজেই 1080p ভিডিও শুট করতে পারবেন । এছাড়াও ফোনে সেলফি ও ভিডিও কলিং এর জন্য 2 মেগা পিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে । এবার দেখে নিন ফোনটির কিছু ক্যামেরা স্যাম্পলস:

IMG_20130101_090740_1IMG_20130101_090847IMG_20130101_092319IMG_20130101_092530

Front Camera: 

11660091_10203970769099142_209250399_o

মাল্টিমিডিয়া :

ফোনে গান শুনে না এবং ভিডিও দেখে না এমন মানুষ কম আছে এই দেশে । Walton Primo RH 2 হ্যান্ডসেটটিতে আপনি 100% ল্যাগিং মুক্ত Full HD ভিডিও দেখতে পারবেন । ফোনের অডিও কোয়ালিটি ও যথেষ্ঠ ভালো । ফোনের সাথে দেয়া হেডফোনের কোয়ালিটিও বেশ ভলো লেগেছে আমার কাছে ।

বেঞ্চমার্ক :

ফোন কিনার আগে ফোনের বেঞ্চমার্ক স্কোর দেখাটা আজ স্বভাবে পরিনত হয়েছে!! কারন প্রত্যেকটি ফোনের বেঞ্চমার্ক দেখে ফোনের performance বোঝা যায় । Walton Primo RH2 এর Antutu Benchmark স্কোর এসেছে 28,308 !! যা যথেষ্ঠ reasonable. 9,990 টাকার ফোন এ এতো বেশী স্কোর সত্যি, দারুন। এ থেকেই বুঝা যায় ফোনটি কতটা সলিড performance দিবে । 

ফোনের Nenamark স্কোর এসেছে 48.0 fps যা আরেকটি অসাধারন দিক ফোনটির । সাধারনত Nenamark স্কোর বলে দেয় ফোনের গ্রাফিক্স কোয়ালিটি । তাই Primo RH2 এ গেমিং ও Full HD ভিডিও প্লেয়িং নিয়ে নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন । দেখে নিন এদের বেঞ্চমার্ক স্কোর –

Screenshot_2015-01-01-08-20-00Screenshot_2015-01-01-08-20-07Screenshot_2015-01-01-08-27-07

ব্যাটারি :

ফোনটিতে আছে 2,000 mah লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি । এমনিতেই li-pro ব্যাটারি ভালো ব্যাকাপ দেয় তার সাথে IPS  ডিসপ্লে হওয়ায় চার্জ তুলামুলক আরো বেশী থাকবে। একবার চার্য দিয়ে সাড়াদিন প্রায় সকল কাজ করতে পারবেন নিশ্চিন্তে।

কানেক্টিভিটি ও সেন্সর :

Primo RH2 ফোনে কানেক্টিভিটি অপশন হিসেবে আছে –

Dual Band Wifi b/g/n (2.4 & 5 GHz), Bluetooth V4, USB V2, WLAN Hotspot, OTG, Wireless Display Sharing
OTA (On The Air) Update Enabled & OTG

সেন্সরস-

Motion sensors: Accelerometer (3D), Gyroscope, Gravity, Rotation Vector
Environment sensors: Light (Brightness)
Position sensors: Proximity, Orientation, Magnetic Field (Compass)
Special Sensor: Hall Sensor

গেমিং :

বর্তমানের মোবাইল গেমগুলোর সাথে পিসি গেমের পার্থক্য নেই বললেই চলে। বেশীরভাগ স্মার্টফোন ব্যবহারকারী ফোনে গেম খেলেন । Walton primo RH2 এ ব্যবহৃত মিডিয়াম রেঞ্জের Mali 450 gpu দিয়ে সহজেই HD গেম খেলতে পারেন। Asphalt 8, Modern Combat, Need For Speed Most Wanted এর মতো বড় গেমস গুলো ল্যাগ ছাড়াই খেলতে পারবেন । 

 

Primo RH2 Special Features :

** Free Flip Cover
** Notification Light
** Unified Storage
** OTA Upgrade Enabled
** Special Security (Through SMS): Remote Phone Lock, Remote Data Wipe, Fetch Back Anti-theft PIN

RH2 Features2RH2 Features1

OTG : 

otg সুবিধা আপনার স্মার্টফোন এক্সপেরিয়েন্স কে নিয়ে যাবে অন্য উচ্চতায় । OTG সুবিধা সম্বলিত Walton Primo RH2 ফোনে সহজেই ডিরেক্টলি Pen drive, Keyboard, Mouse, Game pad, Hard disk যুক্ত করে ব্যবহার করতে পারবেন ।
Screenshot_8

 

OTA :

Walton Primo RH2 ফোনটি OTA (Over The Air) আপডেট সুবিধা সম্বলিত । এতে করে ব্যবহারকারী ডাটা ব্যবহার করে নিজের ফোন থেকেই সফটওয়্যার, বাগ, ভার্শন আপগ্রেড করতে পারবেন কম্পিউটারের সাহায্য ছাড়াই। তাই এতে করে ফোন থেকেই আপগ্রেড’র সকল সুবিধা পাওয়া যাবে । কম্পিউটার নিয়ে আর ভেজাল করতে হবেনা ।

Screenshot_1

 

Anti-theft

আপনারা অনেকেই শুনেছেন Anti-theft এর ব্যপারে। আমি আমার আগের রিভিউ-এ (walton Primo rx3) তে anti-theft এর ব্যপারে একটা Video Share করেছি। আর যারা জানেন না, তাদের সুবিধার জন্য আবারো Video-টা শেয়ার করলাম। দেখুন, একদম সহজ ভাবে anti-theft এর ব্যপারে সব কিছুই দেখানো হয়েছে।

দাম :

ফোনটির দাম রাখা হয়েছে 9,990 টাকা মাত্র । 10 হাজার টাকার নিচে অক্টাকোর প্রসেসর যুক্ত স্মার্টফোন!!!!!!!!!!! সত্যি-ই দারুন।

ফোনের তুলনামূলক ভালো দিক সমূহ :

সব ফোনেরই ভালো খারাপ দিক থাকে । এই ফোনের যেসব দিক ভালো মনে হয়েছে –

  • আকর্ষণীয় ফ্লিপ কভার।
  • অক্টা কোর প্রসেসর, সবচাইতে কম দাামে।
  • OTG ও OTA আপডেট সুবিধা ।
  • দারুন ক্যামেরা ও ডিজাইন ।
  • Unified Storage
  • ১০ হাজার টাকার নিচে অক্টা-কোর প্রসেসর, সত্যিই দারুন।

Unified Storage আসলে কি?

এই সুবিধা অনেক ব্র্যান্ড মোবাইলেও আপনারা পাবেন না। তার আগে এই ফিচারটা আপনাদের সাথে একটু শেয়ার করি। এই সুবিধার ফলো আপনার মোবাইলে যে বিল্ট-ই মেমোরী দেয়া থাকে, আপনি চাইলে সেই যায়গার পুরোটাই এপস ইনষ্টলের ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারবেন অথবা পুরো যায়গাটাই Physical Data (Song, Picture ETC) রাখতে পারবেন। সেই ক্ষেত্রে আপনাদের সুবিধা হলো আপনারা যে কোন ধরনের (1 GB, 2 GB ETC ) apps ইচ্ছে মত ব্যবহার করতে পারবেন।

ফোনের তুলনামলক খারাপ দিক সমূহ :

ফোনের খারাপ দিক বলতে Octa-core Processor এর সাথে 1 জিবি Ram. এছাড়া 2000 mAh এখন অনেকেই পছন্দ করেন না। যদি আরো একটু বেশি হতো তাহলে ইউজার-রা ব্যাটারি ব্যাকাপ নিয়ে কোন প্রকার প্রশ্ন তুলতোনা। এছাড়া কোন খারাপ দিক চোখে পরেনি। দাম হিসেবে বাকি সব ঠিক আছে ।

সিদ্ধান্ত :

ফোনের ভালো-খারাপ দিক, ফিচারস, দাম দেখে মনে হলো ফোনটি এই বাজেটের মধ্যে চমৎকার একটি ফোন। আপনি বর্তমানে 9,990 টাকায় 2gb র‌্যাম আশা করতে পারেন না। সেদিক দিয়ে দেখলে অক্টাকোর প্রসেসরটি একটি উপহার সমতূল্য। ফোনটির দাম ও সকল শ্রেনীর মানুষের হাতের নাগালে। তাই আমি মনে করি দাম এবং ফিচার দেখলে এই ফোনটি অবশ্যই আপনাদের ভালো লাগবে।

ধন্যবাদ আমাদের সাথে থাকার জন্য ।

মন্তব্যসমূহ