শেয়ার

রুট ইউজার দের জন্য প্রয়োজনীয় ১০ টি Apps

 

এন্ড্রয়েড ফোন রুট ছাড়া কোনো মজা নেই। রুট করার পর আপনি আপনার ফোনকে নিজের ইচ্ছা মত কাষ্টমাইজ করতে পারবেন। তাই আজকে আমি নিয়ে আসলাম রুট ইউজার দের জন্য প্রয়োজনীয় ১০ টি এ্যপ।

রুট কি?? কেন রুট করবেন? রুটের সুবিধা ও অসুবিধা কি?? জানতে এখানে ক্লিক করুন।

(১)

Greenify

গ্রিনিফিই সম্পর্কে নতুন করে কিছু বলার নেই। এমন কোনো মানুষ নেই যে গ্রিনিফাই সম্পর্কে জানে না। গ্রিনিফাই এর মূল কাজ হলো
আপনার ফোনে ইনষ্টল করা এ্যপ গুলো হাইবার নেট করে রাখবে ফলে ব্যাকগ্রাউন্ডে কোনো এ্যপ চলবে না

  • র‌্যাম ফ্রি থাকবে
  • ব্যাটারি সেইফ হবে
  • ফোন ফাস্ট হবে

গ্রিনিফাই ডাউনলোড লিঙ্ক

(২)

Link 2SD

অনেক সময় ফোনে অনেক অপ্রয়োজনীয় এ্যপ থাকে সেগুলো আমাদের দরকার হয় না, শুধু শুধু জায়গা খায়, ফোন স্লো করে দেয়। এই সমস্যা টিতে স্যামসাং ইউজার রা বেশি ভোগেন। সেজন্য অাপনারা লিঙ্ক টু এসডি ব্যবহার করতে পারেন। এটির সাহায্যে

  • আপনি অপ্রোজনীয় এ্যপ গুলো আনইনষ্টল করতে পারবেন।
  • যেকোনো এ্যপ কে সিস্টেম এ পারিণত করতে পারবেন।
  • যেকোনো এ্যপ ফ্রিজ করে রাখতে পারবেন।
  • যেকোনো এ্যপের ডেটা এবং ক্যাচ ক্নিন করতে পারবেন এবং আরও অনেক কিছু করতে পারবেন।

Link 2SD ডাউনলোড লিঙ্ক

(৩)
Xposed

Xposed এর সাহায়্যে আপনি অনেক মডিউল ব্যবহার করতে পারবেন। আবার অনেক এ্যপ যেমন গ্রিনিফি (এক্সপেরিমেন্টাল ফিচার) চালাতে Xposed লাগে। Xposed এর জন্য আপনি অনেক মডিউল পাবেন। সেগুলো ইনষ্টল করে আপনি আপনার ফোন কে নিজের ইচ্ছা মত কাষ্টমাইজ করতে পারবেন।

Xposed ডাউনলোড লিঙ্ক

(৪)
Root Browser

এটি দিয়ে

  • আপনি সিস্টেম ফাইল গুলোকে মডিফাই করতে পারবেন।
  • ফোনের DPI কমাতে পারবেন।
  • যেকোনা এ্যপ এডিট করতে পারবেন।

Root Browser ডাউনলোড লিঙ্ক

 

(৫)
Wifi Kill

 

ধরুন আপনি রাউটার ইউজ করেন। আপনার ফ্রেন্ড ও আপনার ওয়াইফাই লাইন ব্যবহার করছে। আপনি তাকে এই মুহুর্তে ব্যবহার করতে দিতে চান না। তখন আপনি এই ওয়াইফাই কিল এর সাহায্য নিতে পারেন। এটার সাহায্যে কানেক্ট করা ডিভাইস গুলো সিলেক্ট করে ”কিল” করে দিতে পারেন। কিল করার পর আপনার ফ্রেন্ড এর ডিভাইসে ওয়াইফাই কানেক্ট থাকবে কিন্তু সে কোনো স্পিড পাবে না। খুব বেশি হবে সে 5-10 কেবি স্পিড পাবে। এখন আপনি পুরো স্পিডে ব্যবহার করুন, আপনার ফ্রেন্ড কিছুই বুঝতে পারবে না 😀

Wifi Kill ডাউনলোড লিঙ্ক

 

(৬)
Lucky Patcher

Lucky Patcher এর সাহায্যে আপনি

  • যেকোনো এ্যপ প্যাচ করতে পারবেন।
  • লাইসেন্স ভ্যারিফিকেশন রিমুভ করতে পারবেন।
  • নিজের মত করে মেডড করে নিতে পারেবেন।
  • এ্যড রিমুভ করতে পারবেন এবং আরও অনেক কিছু করতে পারবেন।

Lucky Patcher ডাউনলোড লিঙ্ক

 

(৭)
Titanium Backup

ধরুন আপনি রম চেঙ্জ করলেন বা ফোন রিসেট দিলেন। তখন আপনার সব গেমসের কয়েন, ডেটা চল যাবে। সেজন্য আপনি এই Titanium Backup ব্যবহার করতে পারেন। Titanium Backup দিয়ে আপনি আপনার সব এ্যপ,গেমসের ডেটা ব্যাকাপ করে রেখে দিতে পারবেন। পরে যেকোনো সময় সেটা রিস্টোর করতে পারবেন।

Titanium Backup ডাউনলোড লিঙ্ক 

(৮)
Seeder

আপনার ফোন স্লো করছে বা কোনো গেমস খেলতে গিয়ে ল্যাগ করছে। আপনি Seeder এ্যপ টি ব্যবহার করতে পারেন। এত আপানার ফোন হবে স্মুদ এবং গেমস হবে ল্যাগ ফ্রি।

Seeder ডাউনলোড লিঙ্ক

(৯)
CPU Control

CPU Control দ্বারা আপনি আপনার ফোনের সিপিইউ কন্ট্রোল করতে পারবেন। ওভার ক্লক করে আপনার ফোনের পারফমেন্স বাড়াতে পারবেন। আবার সিপিইউ লিমিট করে রেখে আপনি ব্যাটারি সেইভ করতে পারবেন।

CPU Control ডাউনলোড লিঙ্ক

(১০)
Flashify

Flashify এর সাহায্যে আপনি

  • বুট ইমেজ, রম, কার্নেল ফ্লাশ করতে পারবেন রিকভারি তে না যেয়েই।
  • আপনি যেকোনো জায়গা থেকে রম রিস্টোর করতে পারবেন।
  • একসাথে অনেকগুলো ফাইল ফ্লাশ করতে পারবেন একবারে সিলেক্ট করে।
  • আপনার রিসেন্ট ফ্লাশ করা ফাইল গুলো সামনে সো করবে।

Flashify ডাউনলোড লিঙ্ক

 

ফেইসবুকে আমি 😉

মন্তব্যসমূহ