শেয়ার

Walpad M Hands On Review [Exclusive]

অনেক দিন ধরে কোন রিভিউ করা হয় না। একটা লম্বা বিরতীর পর আবারো আপনাদের কাছে নিয়ে আসলাম নতুন আরো একটি Walton পণ্যের রিভিউ। আর এইবার আপনাদের সাথে কোন মোবাইল নিয়ে কথা বলবোনা, কথা বলবো Walton এর একটি ট্যাব নিয়ে। আর ট্যাব টির নাম হলো Walpad M.

দেখতে সুন্দর, আকর্ষনীয় Looks আর ষ্টাইলিশ এই ট্যাব-টি ইতি মধ্যেই ক্রেতাদের মাঝে সাড়া ফেলেছে। চলুন, এক নজরে এই ট্যাব-টির কনফিগারেশন দেখে নেই।

Display: 8 inches, WXVGA

Resolution: 1200×800 pixels with 187 ppi

Sim: Dual Sim, Dual Standby

Ram: 1 GB

ROM: 8GB (up to 32 GB)

OS: 4.2.2

CPU: 1.3 Ghz Quad core

Gpu: Mali 400

Camera: 5 MP rear, and 1.3 MP front (1080p video recording0

OTG: YES

Battery: 4200 mAh

বিল্ড কোয়ালিটি ও ডিজাইন

আপনারা জানেন ট্যাব আকারে মোবাইলের তুলনায় অনেক বড় হয়ে থাকে। আর খুব সহজে বহন যোগ্য নয়। কিন্তু তাই বলে কিন্তু কেউ ট্যাব কেনা থেকে নিজেকে বিরত রাখেনা। মূলত ট্যাবের ব্যবহার হয় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অফিসিয়াল কাজে কম্পিউটারের পাশা-পাশি। তবে ইদানিং কালে ট্যাব এর ব্যবহার একটা ফ্যাশন হয়ে গিয়েছে। এই ট্যাবটির বিল্ড কোয়ালিটি এক কথায় চমৎকার। স্টাইলিশ লুকস, অসাধারণ ফিনিশিং হওয়ায় এই ট্যাবটি দেখতে অনেক আকর্ষণীয়। এই ট্যাবটির Body Dimension হচ্ছে 210 X 122.1 X 9 mm এবং এর  ওজন হচ্ছে ৩৬৭ গ্রাম। আপনি যদি এই ট্যাবটা হাতে নিয়ে দেখেন তাহলে মনে হবে এর বডিটা মেটালিক, কিন্তু একটু ভালো করে খেয়াল করলে বুঝতে পারবেন এর বডি প্লাস্টিকের তৈরী। চলুন এই মোবাইলের কিছু স্থির চিত্র দেখে নেই।

[royalslider id=”1″]

CPU & GPU

এই মোবাইলে ব্যবহার করা হয়েছে 1.3 GHZ Quad core Processor এবং Mali 400 GPU. মাল্টি টাস্কিং এর ক্ষেত্রে আপনি অনেক সুবিধা পাবেন। প্রসেসর পাওয়াফুল হওয়ায় Multi-tasking এর ক্ষেত্রে কোন প্রকার ঝামেলা হবেনা। আর GPU হিসেবে Mali 400 যথেষ্ট মনে করি আমি কম বাজেটে। কাজেই গেমিং এবং অন্যান্য কাজের ক্ষেত্রে আপনার ট্যাব-টি স্লো হওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

 Cpu

র‌্যাম এবং রম

এই ট্যাবে রয়েছে 1 GB র‌্যাম এবং  8 GB রম। র‌্যামের মধ্যে আপনি 972 MB পাবেন ইউজার available পাবেন। আর রমের মধ্যে আপনি 5 GB ব্যবহার করতে পারবেন আর বাকি টুকু সিস্টেম এবং এপস ইনষ্টলের জন্য পাবেন। এছাড়াও 32GB অতিরিক্ত মেমোরী কার্ড ব্যবহার করার সুবিধা তো রয়েছেই।

[royalslider id=”5″]

ডিসপ্লে এবং টাচ

এই ট্যাবে রয়েছে 8 inche WXVGA যার স্ক্রিন যার রেজুল্যুশন হচ্ছে 1200×800 pixels. আর এই ট্যাবের পিক্সেল রয়েছে প্রতি ইঞ্চিতে 187, ট্যাব হিসেবে এই পিক্সেল ডেনসিটি খারাপ না। খারাপ বলছিনা এই কারণে, কারণ যদি আপনি ব্র্যান্ডের কোন ট্যাব ব্যবহার করেন তাহলে আপনাকে কম পক্ষে ৪০,০০০ টাকা পর্যন্ত খরচ করতে হবে। আর আপনি এই ট্যাবটি পাচ্ছেন ১৭ হাজার টাকার মধ্যেই। এই ট্যাবের টাচ response যথেষ্ঠ ভালো এবং কোন প্রকার ল্যাগিং আমি যতক্ষন ব্যবহার করেছি ততক্ষন পাইনি। কাজেই আপনারা নিশ্চিন্তে এই ট্যাবটি ব্যবহার করতে পারেন। যেহেতু ডিসপ্লে’র সাথে কোন প্রকার Protection নেই, কাজেই আপনাকে ডিসপ্লেতে ভালো মানের Scratch resistant paper ব্যবহার করতে হবে।

ইউজার ইন্টারফেস

ইউজার ইন্টারফেস নিয়ে কিছু কথা আগে থেকেই বলে রাখি আপনাদের। ট্যাবের ইউজার ইন্টারফেস সাধারণত মোবাইলের মত হয়না। কিন্তু বলতে বাধ্য হচ্ছি এই ট্যাবের নেভিগেশন বার আপনাকে পুরোপুরি সন্তুষ্ট করবে। আপনি এপস ড্রয়ার ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া থিম পরিবর্তনের সুবিধা তো পাচ্ছেন-ই। আর বিভিন্ন লঞ্চার ব্যবহারের সুযোগ তো থাকছেই। ইউজার ইন্টারফেস নিয়ে হতাশ হবার কিছু নেই। ইউজার ইন্টারফেস দেখে কেউ ট্যাব কেনেনা, পারফরমেন্স দেখে সবাই ট্যাব কেনে। সেই ক্ষেত্রে আমি বলবো আপনারা এই ট্যাবের পারফরমেন্স অনেক ভালো পাবেন। চলুন এক নজরে এই ট্যাবের ইউজার ইন্টারফেসের কিছু স্থির চিত্র দেখে নেই।

[royalslider id=”2″]

ক্যামেরা

এই ট্যাবে রয়েছে 5 MP Rear Camera এবং 1.3 MP front camera. ট্যাব হিসেবে ক্যামেরা যথেষ্ট বলে মনে করি। আর তাছাড়া ট্যাব কেউ ছবি তোলার জন্য কেনেনা। অফিসিয়াল কাজ এবং Video Chatting এর জন্য এই ট্যাবের ক্যামেরা যথেষ্ট-ই বলা চলে। কিন্তু তারপরেও কিছু ক্যামেরা স্যাম্পল দিচ্ছি আপনাদের বোঝার সুবিধার্তে।

Rear Camera

[royalslider id=”6″]

Front Camera

Front Camera

বেঞ্চমার্ক স্কোর

এই ট্যাবের বেঞ্চমার্ক স্কোর খুব বেশি এটা বলবোনা। তবে দাম অনুযায়ী এর চেয়ে বেশি আশা করা ঠিক হবেনা। এই ট্যাবের antutu benchmark score হচ্ছে 15,421 এবং nena mark score হচ্ছে 45. আশা হত হওয়ার কিছু নেই। দাম অনুযায়ী কনফিগ এবং স্কোর ঠিক-ই আছে।
[royalslider id=”3″]

Walpad M V/S Brand Mobile

ব্র্যান্ডের কোন পন্যের সাথে দেশীয় কোন পন্যের তুলনা না করাই ভালো। তবে আমরা দাম আর কনফিগের দিক থেকে বিবেচনা করে আমরা বেশ কিছু মোবাইলের সাথে এই ট্যাবের তুলনা করেছি যার চিত্র আপনারা নিচের ছবিতে দেখতে পাচ্ছেন।
[royalslider id=”4″]

গেমিং রিভিউ

ট্যাবের সবচাইতে বড় মজা হলো ট্যাবে গেমস খেলে অনেব মজা। Asphalt 8, Fifa 14, fifa 15 গেমস গুলো কোন প্রকার ল্যাগিং ছাড়াই আপনারা খেলতে পারবেন। এছাড়াও Modern Combat, D-Day থেকে শুরু করে প্রায় সব ধরনের বড় বড় গেমস গুলো স্বাচ্ছন্দেই খেলতে পারবেন। কাজেই গেমস খেলার স্বাধীণতা মোবাইলের চেয়ে একটু বেশি-ই পাচ্ছেন।

 

সাউন্ড কোয়ালিটি

সাউন্ড কোয়ালিটি আমার কাছে OK লেগেছে। তবে এটা বলে রাখি মিউজিক কোয়ালিটি কিন্তু Sony/Samsung এর মত নয়। Loud Speaker এর সাউন্ড যথেষ্ট লাউড-ই পাবেন। ফোনে কথা বলার সময় যথেস্ট স্পষ্ট সাউন্ড পাবেন যার সাথে কথা বলবেন।

ব্যাটারি

এ্‌ ট্যাবে রয়েছে 4200 mAh ব্যাটারি। কাজেই চার্য নিয়ে আর আপনাকে চিন্তা করতে হবেনা। ফুল চার্য দিয়ে আপনি নেট ব্রাউজিং এবং গেমস খেলেও পুরো একদিন কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই এই ট্যাবটি ব্যবহার করতে পারবেন।

দাম

এই ট্যাবের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১৪,৯৯০ টাকা। কনফিগারেশন এবং Overall চিন্তা করলে এই দামে এই ট্যাব যথেষ্ট মান সম্মত বলেই মনে করি।

কৃতজ্ঞতা

Special Thanks To Walton Plaza Bashundhara City Level-01, Block-C, Shop-97/98 Walton Plaza Bashundhara City,Panthopath,Dhaka Please call for more details or any questions. Contact numbers: 01678028072 / 01678028947 (10 AM to 09 PM)

মন্তব্য

এখন বাজারে ৮০০০ টাকার মধ্যেই কিটক্যাট OS ট্যাব পাওয়া যায়, সেখানে এখনো Walton 4.2.2 OS যুক্ত ট্যাব বাজারে ছাড়ছে। ইউজার-রা কিছু বুঝুক আর না বুঝুক, কিটক্যাট বলতেই পাগল এখন। কাজেই আমার একটা দাবী থাকবে, ইউজারদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে মোবাইল এবং ট্যাব বাজারজাত করতে অনুরোধ করবো।

মন্তব্যসমূহ